1. admin@doinikbangladeshsangbad.com : admin :
  2. alim464546f@gmail.com : বাংলাদেশ সংবাদ ডেস্ক : বাংলাদেশ সংবাদ ডেস্ক
  3. mehedihasanshipon789@gmail.com : বাংলাদেশ সংবাদ ডেস্ক : বাংলাদেশ সংবাদ ডেস্ক
  4. mehedihasan789@gmail.com : বাংলাদেশ সংবাদ ডেস্ক : বাংলাদেশ সংবাদ ডেস্ক
২৩শে মার্চ, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ| ৯ই চৈত্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ| বসন্তকাল| বৃহস্পতিবার| রাত ১১:৪০|
শিরোনামঃ
মোরেলগঞ্জে বিশ্ব যক্ষা দিবস পালন পিরোজপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত এডভোকেট অবিনাশ মিত্রের মৃত্যুর ঘটনায় আইনজীবী সমিতির বিক্ষোভ ও স্মারকলিপি প্রদান পিতা পুত্রকে কুপিয়ে, পালানোর সময় জনতার হাতে খুনি আটক। লাখাইয়ে কালবৈশাখী ঝড়ে অসংখ্য গাছপালা ও কাঁচা ঘর বাড়ির ক্ষতি সাধন ও পথচারী আহত। নাজিরপুরে মাঠ দিবস ও কারিগরি সভা অনুষ্ঠিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আপনাদের ঘর দিয়েছে , শেখ হাসিনার জন্য দোয়া করবেন বললেন মোঃ নুরুল ইসলাম রাজা – উপজেলা চেয়ারম্যান দেশ ও প্রবাসের সকলকে পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন দৈনিক বাংলাদেশ সংবাদ এর সম্পাদক মোঃ শাহাদাত ভূইঁয়া IHWS পিরোজপুর জেলার উদ্দ্যোগে শিক্ষা সামগ্রী বিতরন শাহজাদপুরে মখদুমিয়া জামে মসজিদের ২দিন ব্যাপী ওরস শুরু আজ কালিহাতীতে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক নিহত

রোজাদারকে ইফতার করানো অত্যন্ত সওয়াবের কাজ- হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকী

সাংবাদিকের নাম
  • প্রকাশিত সময়ঃ শনিবার, ১৮ মার্চ, ২০২৩
  • ৪৫ বার পড়েছেন

 

রোজাদার সূর্যাস্তের পর যে পানাহারের মাধ্যমে রোজা ভাঙে তাকে ইফতার বলে। রমজানের অন্যতম সুন্নত হলো ইফতার। ইফতারের সময় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ইফতার করা উত্তম। এ ছাড়া ইফতার সামনে নিয়ে যে দোয়া করা হয়, সেই দোয়া মহান আল্লাহর দরবারে গুরুত্বের সঙ্গে কবুল হয় বলে হাদিস শরিফে উল্লেখ রয়েছে।
খেজুর বা খুরমা দিয়ে ইফতার করা সর্বাপেক্ষা উত্তম। যদি তা সম্ভব না হয় তাহলে যেকোনো মিষ্টিজাতীয় বস্তু দিয়ে ইফতার করা ভালো। আর যদি এটাও সম্ভব না হয় তাহলে যেকোনো হালাল খাদ্য দিয়ে, এমনকি শুধু পানি দিয়েও ইফতার করা যায়।

রাসুলে করিম (সা.) এরশাদ করেছেন, তোমরা যখন ইফতার করো, তখন খুরমা বা খেজুর দিয়ে ইফতার করো, কেননা খুরমা বা খেজুরের মধ্যে বরকত রয়েছে, আর যদি খুরমা বা খেজুর পাওয়া না যায়, তাহলে পানি দিয়ে ইফতার করা ভালো, কেননা পানি পবিত্রকারী। হাদিসে পানিমিশ্রিত দুধ দিয়ে ইফতার করার হুকুমও বর্ণিত রয়েছে।

পবিত্র এই মাসে আল্লাহর বান্দারা পারস্পরিক উত্তম আমলের প্রতিযোগিতা করে। রোজাদারকে ইফতার করানোও অত্যন্ত সওয়াবের কাজ। আল্লাহর রাসুল (সা.) ইরশাদ করেছেন, ‘যে ব্যক্তি কোনো রোজাদারকে ইফতার করাবে সে ওই রোজাদারের সমপরিমাণ সওয়াব পাবে। এবং রোজাদারের সওয়াবও কমানো হবে না।’ (তিরমিজি, হাদিস : ৮০৭)

সাহাবায়ে কেরাম এ কথা শুনে বললেন, ইয়া রাসুলুল্লাহ! আমাদের অনেকেরই রোজাদারকে ইফতার করানোর সামর্থ্য নেই। রাসুলুল্লাহ (সা.) বললেন, পানিমিশ্রিত এক কাপ দুধ বা একটি শুকনো খেজুর অথবা এক ঢোক পানি দিয়েও যদি কেউ কোনো রোজাদারকে ইফতার করায়, তাতেও আল্লাহ তাকে সেই পরিমাণ সওয়াব দান করবেন। আর যে ব্যক্তি কোনো রোজাদারকে তৃপ্তিসহকারে আহার করাবে, আল্লাহ তাআলা তাকে আমার হাউসে কাউসার থেকে এমন পানীয় পান করাবেন, যার ফলে সে জান্নাতে প্রবেশ করার আগ পর্যন্ত তৃষ্ণার্ত হবে না।

খাবার খাওয়ানোর ইবাদতের মাধ্যমে আরও অনেকগুলো ইবাদত পালিত হয়। নিমন্ত্রিত ভাইদের সাথে হৃদ্যতা ও ভালোবাসা। যে হৃদ্যতা ও ভালোবাসা জান্নাতে প্রবেশের কারণ। যেমনটি নবী (সা.) বলেছেন, ‘তোমরা ঈমান আনা ছাড়া জান্নাত যেতে পারবে না। আর পারস্পারিক ভালোবাসা ছাড়া তোমাদের ঈমান হবে না।’ (সহিহ মুসলিম, হাদিস : ৫৪) মহান আল্লাহ পাক যেন মুসলিম উম্মাহকে উপরোক্ত কথা গুলোর উপর আমল করার তাওফিক দান করেন, আমিন।

লেখক : বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ লেখক ও কলামিস্ট হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকী।

এই নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2019 doinikbangladeshsangbad.com