1. admin@doinikbangladeshsangbad.com : admin :
  2. alim464546f@gmail.com : বাংলাদেশ সংবাদ ডেস্ক : বাংলাদেশ সংবাদ ডেস্ক
  3. mehedihasanshipon789@gmail.com : বাংলাদেশ সংবাদ ডেস্ক : বাংলাদেশ সংবাদ ডেস্ক
  4. mehedihasan789@gmail.com : বাংলাদেশ সংবাদ ডেস্ক : বাংলাদেশ সংবাদ ডেস্ক
মিঠামইনে আগামী ২৮শে ফেব্রুয়ারী প্রধান মন্ত্রী আসছেন। - দৈনিক বাংলাদেশ সংবাদ - Daily Bangladesh Sangbad
২৮শে মার্চ, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ| ১৪ই চৈত্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ| বসন্তকাল| মঙ্গলবার| রাত ৩:০৮|
শিরোনামঃ
ইউনিক ইয়ুথ ফোরামের সদস্য নবায়ন -২০২৩। এগিয়ে যাচ্ছে নোয়াখালী দ্বীপ হাতিয়ার কিশোর কিশোরী ক্লাব এর কার্যক্রম। বালিয়াকান্দিতে পাওনা টাকা চাওয়ায় শিক্ষককে মারপিট নাজিরপুরে স্বাধীনতা দিবসে শহীদদের স্মরনে শ্রদ্ধা নিবেদন করে নাই উপজেলা বিএনপি *আমতলীতে বৃষ্টিতে ভেসে গেছে তরমুজচাষিদের স্বপ্ন * ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল ২৬ শে মার্চের বীর শহীদদের শ্রদ্ধা জানালেন উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ নুরুল ইসলাম রাজা শাহজাদপুরে বিশ্ব নাট্য দিবস পালিত। রক্তিম নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে বিধবা, প্রতিবন্ধী ও অসহায় দুস্থদের মাঝে ইফতার বিতরণ কোমরে পিস্তল গুঁজে ফেসবুকে ছবি দেওয়ায় ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা

মিঠামইনে আগামী ২৮শে ফেব্রুয়ারী প্রধান মন্ত্রী আসছেন।

সাংবাদিকের নাম
  • প্রকাশিত সময়ঃ রবিবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
  • ৯৫ বার পড়েছেন

 

বিজয় কর রতন, ষ্টাফ রিপোর্টার কিশোরগঞ্জঃ: আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারী কিশোরগঞ্জের হাওর উপজেলা মিঠামইন সফরে আসছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা। মিঠামইন সদরে বীরমুক্তিযোদ্ধা মো. আবদুল হামিদ সেনানিবাস উদ্বোধন করবেন তিনি। আর দুপুরে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের বাড়িতে মেহমান হবেন প্রধানমন্ত্রী। রাষ্ট্রপতির বাড়িতে দুপুরের খাবার গ্রহণ করবেন তিনি। এদিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ তার সফর সঙ্গীদেরকে হাওরের বিভিন্ন প্রজাতির মাছ দিয়ে আপ্যায়ন করা হবে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের বাড়িতে। পরে বিশ্রাম শেষে বিকেলে মিঠামইন হেলিপ্যাড মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় ভাষণ দিবেন তিনি।

কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রাষ্ট্রপতিপুত্র প্রকৌশলী রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এমপি তৌফিক জানান, ২৮শে ফেব্রæয়ারী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মিঠামইনে আসবেন। এর একদিন আগে ২৭শে ফেব্রুয়ারী মিঠামইনে চলে আসবেন মহামান্য রাষ্ট্রপতি।

প্রধানমন্ত্রী প্রথমে মিঠামইন সদরে বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আবদুল হামিদ সেনানিবাস উদ্বোধন করবেন। পরে রাষ্ট্রপতির আমন্ত্রণে তার পৈত্রিক বাড়ি মিঠামইন সদরের কামালপুর গ্রামে মেহমান হবেন তিনি। সেখানে প্রধানমন্ত্রীকে আপ্যায়ন করা হবে হাওরের বিভিন্ন প্রজাতির মাছ দিয়ে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী অষ্টগ্রামের পনির অনেক পছন্দ করেন। অষ্টগ্রামের এই পনির মাঝে-মধ্যেই গণভবনে পাঠানো হয়। এদিন প্রধানমন্ত্রীর সাথেও অষ্টগ্রামে বিখ্যাত পনির দিয়ে দিতে চান বলেও জানান তৌফিক। মিঠামইনের পাশের উপজেলা হলো অষ্টগ্রাম। রাষ্ট্রপতিপুত্র এমপি তৌফিক আরও জানান, মিঠামইনে প্রধানমন্ত্রীর সফরের প্রস্তুতি পুরোদমে চলছে। আজ রবিবারের মধ্যেই সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হবে। প্রধানমন্ত্রীর এ সফরকে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যেই হাওরবাসীর মধ্যে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। তিনি বলেন, হাওরের মানুষ যারা জীবিকার তাগিদে বিভিন্ন জায়গায় কাজ-কর্ম করেন ইতোমধ্যে তারাও বাড়িতে আসতে শুরু করেছেন। তার বিশ্বাস ব্যাপক জনসমাগম ঘটবে এই সমাবেশে। প্রধানমন্ত্রীর কাছে কোন দাবি উত্থাপন করা হবে কিনা, এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের হাওরবাসীর আর কোনো চাওয়া বা দাবি নেই। হাওরের উন্নয়নে তিনি সব করে দিয়েছেন। তিনি যা করে দিয়েছেন তার কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেই শেষ করতে পারবো না। আজীবন কৃতজ্ঞতা স্বীকার করবে হাওরবাসী। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী হাওরে আসছেন এটাই আমাদের বড় পাওয়া। জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর মিঠামইন সফরকে কেন্দ্র করে জেলার ১৩ উপজেলায় প্রস্তুতি সভা করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ। প্রধানমন্ত্রীর এ জনসভাকে জনসমুদ্রে পরিণত করতে ব্যাপক কার্যক্রম গ্রহণ করেছে জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলো। তবে সবচেয়ে বেশি উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে হাওরে। প্রতিদিন পাড়া-মহল্লায় উঠান বৈঠক ও আনন্দ মিছিল করছেন তারা। উল্লেখ্য, এর আগে ১৯৯৮ সালের ৩ অক্টোবর মিঠামইনে প্রথমবার এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তখন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও ডেপুটি স্পিকার ছিলেন। দীর্ঘ ২৫ বছর পর আবারও মিঠামইন সফরে আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

এই নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2019 doinikbangladeshsangbad.com